জেনে নিন কোষ্ঠকাঠিন্যের কারণ আর এর কয়েকটি অব্যর্থ ঘরোয়া প্রতিকার

0
28


নিজস্ব প্রতিবেদন: বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অপরিকল্পিত ডায়েট, অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাসের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা হয়ে থাকে। তবে কিছু ক্ষেত্রে এই সমস্যা বংশগত। কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় সময় মতো উপযুক্ত ব্যবস্থা না নিতে পারলে তা কোলন ক্যান্সারের আশঙ্কা বহুগুণ বাড়িয়ে দিতে পারে। কোষ্ঠকাঠিন্যের ফলে শরীর থেকে মল প্রতিদিন স্বাভাবিক ভাবে নির্গত হতে পারে না। পেট ভরে কিছু খাওয়ার ক্ষেত্রেও সব সময় যেন একটা ভয় তাড়া করে বেড়ায়। আসুন এ বার জেনে নেওয়া যাক কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যার পেছনে লুকিয়ে থাকা কারণগুলি কী কী…

কোষ্ঠকাঠিন্যের কারণ:

১) কম জল খেলে, ২) আঁশজাতীয় বা ফাইবার যুক্ত খাবার, শাক-সবজি ও ফলমূল কম খেলে, ৩) পনির, ছানা ইত্যাদি দুগ্ধজাত খাবার অত্যাধিক পরিমাণে খেলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা বাড়াতে পারে, ৪) কায়িক পরিশ্রম, হাঁটা-চলা বা শরীরচর্চা একেবারেই না করলে, ৫) দীর্ঘদিন কোনও অসুস্থতার কারণে বিছানায় শুয়ে থাকার ফলে, ৬) মারাত্মক দুশ্চিন্তা বা অবসাদের ফলে, ৭) অন্ত্রনালীতে ক্যান্সার হলে, ৮) ডায়াবেটিস হলে, ৯) মস্তিষ্কে টিউমার হলে এবং মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের ফলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা শরীরে বাসা বাঁধতে পারে।

কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাস, অপরিকল্পিত ডায়েটের কারণে হয়ে থাকে। তবে কিছু ক্ষেত্রে এই সমস্যা বংশানুক্রমিক। কোষ্ঠকাঠিন্যে সময়মতো যথাযথ চিকিত্সার ব্যবস্থা বা সতর্কতা অবলম্বন না-করলে তা কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি বহুগুণ বাড়িয়ে দেয়। তাই সময় থাকতেই সতর্ক হওয়া উচিত। প্রথমিক পর্যায়ে অ্যালোপ্যাথি ওষুধপত্রের চেয়ে প্রকৃতিক উপায়ে কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময় করা সম্ভব। জেনে নিন ৪টি ঘরোয়া উপায় যা কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময় করতে অব্যর্থ।

আরও পড়ুন: বদলে যাচ্ছে আবহাওয়া, হতে পারে চিকেন পক্স! সুস্থ থাকতে সতর্ক থাকুন

কোষ্ঠকাঠিন্যের কয়েকটি অব্যর্থ ঘরোয়া প্রতিকার:

১) প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার ১ ঘণ্টা আগে একটি খোসাসমেত একটা গোটা আপেল খান। উপকার পাবেন।

২) রাতে ঘুমাতে যাবার আগে এক কাপ উষ্ণ জল খান। উষ্ণ জল খেলে তা হজমে সহায়তা করবে এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করবে। তাই নিয়মিত রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক কাপ উষ্ণ জল খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

৩) একটি বড় এলাচ এক কাপ গরম দুধে সারা রাত ভিজিয়ে রেখে দিন। সকালে ঘুম থেকে উঠে এই এলাচটি থেঁতো করে দুধের সঙ্গেই খেয়ে ফেলুন। মারাত্মক রকমের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় সকালে আর রাতে এই ভাবে এলাচ-দুধ খেতে পারলে দ্রুত উপকার পাবেন।

৪) রাতের শোবার আগে এক গ্লাস উষ্ণ জলে এক চামচ মধু আর এক চামচ পাতি লেবুর রস মিশিয়ে প্রতিদিন খেয়ে দেখুন। চেষ্টা করুন বাঁ দিকে পাশ ফিরে ঘুমোতে। এই অভ্যাস গড়ে তুলতে পারলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় দ্রুত উপকার পাবেন।





Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here